রাষ্ট্রই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাস করছে: ফখরুল

‘রাষ্ট্রই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাস করছে’ বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আজকের এই যে জঙ্গিবাদ বলুন, সন্ত্রাস বলুন, সবকিছুর মূলে হচ্ছে দেশে গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি। সবচেয়ে বড় সন্ত্রাস হচ্ছে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে, রাষ্ট্রই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাস করছে।’

গতকাল শুক্রবার দুপরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে সাবেক মন্ত্রী আনোয়ার জাহিদের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক দল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) এ সভার আয়োজন করে।

বিএনপির মহাসচিব অভিযোগ করেন, জঙ্গিবাদকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে সরকার গোটা বাংলাদেশে একটা নিষ্ঠুর দমনপীড়ন চালাচ্ছে। তিনি বলেন, এখন দেশে কোনো মানুষ নিরাপদ নয়। মানুষ একাত্তর সালে যুদ্ধ করে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিল, সেই বাংলাদেশের মানুষ আজ দিগ্ভ্রান্ত।

মির্জা ফখরুল বলেন, জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় খালেদা জিয়া দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকেই জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছেন। এটা তাঁর অন্তর থেকে এসেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্য, এই আহ্বান নিয়ে উল্টো মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। তিনি দাবি করেন, আওয়ামী লীগ কোনো দিন জাতিকে রক্ষা করার আহ্বানে সাড়া দেয়নি। সাড়া দেয়নি বলেই তারা এই আহ্বানকে উপেক্ষা করেছে এবং জাতিকে আরও বিভক্ত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

বক্তব্যের শুরুতেই আনোয়ার জাহিদকে স্মরণ করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের স্বকীয়তার যে রাজনীতি, সেটা আনোয়ার জাহিদ শুরু করেছিলেন। কখনো অর্থের পেছনে ছোটেননি।

এনডিপির চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজার সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আরও বক্তব্য দেন জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, বাংলাদেশ ন্যাপের সভাপতি জেবেল রহমান গানি, এনপিপির সভাপতি ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

Leave a Reply

Go Top
%d bloggers like this: