খালেদার কেক না কাটার আসল কারণ জানেন হাসিনা !

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কেক না কাটা সম্পর্কে বলেছেন, ‘কালকে শুনলাম কেক যে তিনি (খালেদা) কাটবেন না। এটাকে অনেকে রাজনৈতিক উদারতা হিসাবে দেখাতে চাচ্ছেন। আসল কারণ আমি জানি। ১২ আগস্ট তার ছেলে কোকোর জন্মদিন। কাজেই কোকোর জন্মদিন যেহেতু করতে পারবে না, সে মারা গেছে… তাই নিজেরটা করবে না।’

মঙ্গলবার রাজধানীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় শেখ হাসিনা একথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু হত‌্যাকাণ্ডের দিন ১৫ অগাস্ট জাতীয় শোক দিবসে জন্মদিন উদযাপন না করতে আওয়ামী লীগ নেতাদের আহ্বানের প্রেক্ষাপটে এবার বন‌্যা এবং সরকারি নির্যাতন-নিপীড়নকে কারণ দেখিয়ে কেক কাটেননি খালেদা। তবে দিনটিতে দলীয় কার্যালয়ে মিলাদ মাহফিল করেছে বিএনপি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যার জন্মদিন এই তারিখে না, শুধুমাত্র আমাদেরকে আঘাত দেওয়ার জন্য, যেদিন আমরা শোকে কাতর, বাবা হারিয়েছি, মা হারিয়েছি, ভাই হারিয়েছি সেই ব্যথায় যেদিন ব্যথিত থাকি, সেদিন আরেকজন কেক কেটে সেজেগুজে জন্মদিন পালন করে।”

‘সেটাই ছিল তার উদ্দেশ্য। যেহেতু ১২ই আগস্ট তার ছেলের জন্মদিন, ছেলে মারা গেছে মা হয়ে আর কী করবে। এটা রাজনৈতিক উদারতা নয়। কেউ যদি এটা মনে করেন, ভুল করবেন।’

খালেদা জিয়ার ‘অন্য জন্মদিনের’ হদিস পাওয়ার কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “তাছাড়া সে করবে কী, এটাতো তার জন্ম দিন না। পাসপোর্টেতো অন্য তারিখ বা প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সময় অন্য তারিখ দিয়েছে।”

“শুধুমাত্র বঙ্গবন্ধুকে হেয় করার জন্য, আমাদেরকে আঘাত দেওয়ার জন্য এ দিনটাকে বেছে নিয়েছিলো ফুর্তি করাতে…১৫ আগস্ট উৎসব করে জানিয়ে দেয় খুনিদের তাদের সাথে সে আছে।”

Leave a Reply

Go Top
%d bloggers like this: