সুপ্রিম কোর্টে অবকাশকালীন বেঞ্চ

153235_1সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটি এবং অবকাশ মিলিয়ে আগামী ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগে নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। এ সময়ে জরুরি মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে নিষ্পত্তির জন্য সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে অবকাশকালীন বেঞ্চ থাকবে। সুপ্রিম কোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অবকাশকালীন আপিল বিভাগে জরুরি মামলা বিষয়ে শুনানি ও নিষ্পত্তির জন্য বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী চেম্বার কোর্টে বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। প্রধান বিচারপতি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ১৬ অক্টোবর বেলা ১১টা থেকে এবং বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী আগামী ১৮, ২৫ সেপ্টেম্বর এবং ২, ৯, ১৯ ও ২৩ অক্টোবর বেলা ১১টা থেকে জরুরি মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে নিষ্পত্তির জন্য আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে বসবেন। এ অবকাশকালীন হাইকোর্ট বিভাগে জরুরি মামলা নিষ্পত্তির জন্য ২৭টি বিচারিক বেঞ্চ গঠন করে সুনির্দিষ্ট এখতিয়ার দেয়া হয়েছে। ডেপুটি রেজিস্ট্রার (প্রশাসন ও বিচার) মো. আজিজুল হক স্বাক্ষরিত সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিচারপতি মো. মিজানুর রহমান ভূঁঞা’র একক বেঞ্চ, বিচারপতি মো. এমদাদুলের একক বেঞ্চ, বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি ভিষ্মুদেব চক্রবর্তীর দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি সৌমেন্দ্র সরকার ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবির সমন্বয়ে দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হক সমন্বয়ে দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ’র একক বেঞ্চ, বিচারপতি মো. আকরাম হোসেন চৌধুরীর একক বেঞ্চ এবং বিচারপতি সহিদুল করিমের একক বেঞ্চ দেওয়ানী সংক্রান্ত জরুরি মামলা শুনানি ও নিষ্পত্তি করবে। বিচারপতি ফরিদ আহম্মদ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি মুহাম্মদ আব্দুল হাফিজের একক বেঞ্চ, বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি আমির হোসেনের দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের একক বেঞ্চ, বিচারপতি সৈয়দ মো. জিয়াউল করিমের একক বেঞ্চ, বিচারপতি শেখ আব্দুল আউয়ালের একক বেঞ্চ, বিচারপতি এম, মোয়াজ্জাম হোসেন ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি জাফর আহম্মেদের দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের একক বেঞ্চ, বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকী ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র দ্বৈত বেঞ্চ এবং বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি ফরিদ আহমদ শিবলী সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ ফৌজদারি সংক্রান্ত মামলার বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। বিচারপতি এ, এফ, এম আবদুর রহমানের একক বেঞ্চ এবং বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরীর একক বেঞ্চ আদিম অধিক্ষেত্রাধীন বিষয় সংক্রান্ত মামলার বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি বোরহান উদ্দিন ও বিচারপতি এস, এম মজিবুর রহমানের দ্বৈত বেঞ্চ, বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাস সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এবং বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি মো. সেলিমের দ্বৈত বেঞ্চ জরুরি রিট সংক্রান্ত বিষয় নিষ্পত্তি করবেন।

Leave a Reply

Go Top
%d bloggers like this: