তাজমহলে সাপ আতঙ্ক

অনাকাঙ্ক্ষিত এক অতিথিকে নিয়ে বেশ বিপাকেই পড়তে হলো তাজমহল কর্তৃপক্ষকে। ছয় ফুট লম্বা একটি সাপ প্রচণ্ড গরমে অতিষ্ট হয়ে শীতল কোনে স্থানের খোঁজে তাজমহলের ভিতর ঢুকে পড়েছিল। ১৭ শতকের এই স্মৃতিস্তম্ভের ভেতর সাপটিকে দেখে পর্যটকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

 পর্যটকদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে তাজমহলের প্রত্নতাত্ত্বিক দল তাৎক্ষণিকভাবে এগিয়ে এসে সাহায্যের জন্য খবর দেয় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগে। খবর পেয়ে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগের কর্মকর্তারা এসে সাপটিকে ধরে ফেলেন।

তাজমহলের পর্যটকদের জন্য পানি শোধনাগারের শীতলীকরণ অংশে সাপটিকে দেখা যায়। পরে তাজমহলের প্রত্নতাত্ত্বিক দল দ্রুত সেটা দেখে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগে খবর পাঠায়।

তাজমহলের প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মুনাজ্জার আলী জানান, পর্যটকদের পানি পান করার জন্য পর্যাপ্ত বিশুদ্ধ পানি নিশ্চিত করতে তাজমহলে চারটি পানির প্লান্ট রয়েছে। সেখানেই আশ্রয় নিয়েছিল সাপটি। তাৎক্ষণিকভাবে পর্যটকদের নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এছাড়া পর্যটকদের সহায়তার জন্য অবিলম্বে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগে যোগাযোগ করা হয়েছে।

snake

সাপটি ধরার আগে পর্যটক ও কর্মকর্তাদের নিরাপদ দূরত্বে রাখা হয়। তবে এক ঘণ্টার চেষ্টার পর সাপটিকে ধরে একটি বাক্সের মধ্যে রাখা হয়। র্যা ট স্নেক জাতের ওই সাপের প্রধান খাদ্য পাখি ও রোডেন্ট।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগের পরিচালক বাইজু রাজ এম. ভি. বলেন, তীব্র গরমে পানি ও ঠান্ডা জায়গা খুঁজছিল সাপটি। উদ্ধারকৃত র্যা ট স্নেক বর্তমানে পর্যবেক্ষণে রয়েছে। এটিকে ছেড়ে দেয়া হবে। সাপটি কারো কোনো ক্ষতি করেনি।

Leave a Reply

Go Top
%d bloggers like this: